ঢাকাশুক্রবার , ২৯ ডিসেম্বর ২০২৩
  1. কারিগরি
  2. ক্যাম্পাস
  3. খেলাধুলা
  4. জব কর্নার
  5. দেশ-বিদেশ
  6. প্রাথমিক
  7. বিনোদন
  8. বিশ্ব-বিদ্যালয়
  9. মতামত
  10. মাদ্রাসা
  11. মাধ্যমিক
  12. শিক্ষাগুরু
  13. সম্পাদকীয়
  14. সারা দেশ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নাটোর-৪ আসনে আ.লীগের নৌকার বড় চ্যালেঞ্জ স্বতন্ত্র প্রার্থী

nasir uddin
ডিসেম্বর ২৯, ২০২৩ ২:৪৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

শাহীন ইসলাম, ব্যুরো চীফ রাজশাহী।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নাটোর-৪ (গুরুদাসপুর-বড়াইগ্রাম) আসনে আওয়ামী লীগের বড় চ্যালেঞ্জ এখন দলের স্বতন্ত্র প্রার্থী। আ.লীগের প্রার্থী জেলা আ. লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়ছেন।

কিন্তু দেখা যাচ্ছে স্বতন্ত্র দুই প্রার্থী তার বড় বাধা। প্রথম বাধা স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক আসিফ আব্দুল্লাহ বিন কুদ্দুস শোভন (ট্রাক) মার্কা প্রতীক ও দ্বিতীয় গুরুদাসপুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়াম্যান মো. জাহিদুল ইসলাম জাহিদ (ঈগল) প্রতীক। এছাড়া অন্য দলগুলোর প্রার্থীরা ভোটের মাঠে থাকলেও আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ডা. সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারীর সঙ্গে মূলত লড়াই হবে আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র প্রার্থী আসিফ আব্দুল্লাহ বিন কুদ্দুস শোভন।

স্বতন্ত্র প্রার্থী আসিফ আব্দুল্লাহ বিন কুদ্দুস শোভন উত্তরাঞ্চলের বর্ষীয়ান ও কিংবদন্তী রাজনীতিবিদ পাঁচবারের নির্বাচিত এমপি প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুসের একমাত্র ছেলে। শোভন (ট্রাক) মার্কা প্রতীক পেয়েই নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণায় নেমে পড়েছেন। তার পক্ষে মাঠে নেমেছেন বড়াইগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস মিঁয়াজি, বড়াইগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মিজানুর রহমান মিজান, বড়াইগ্রাম উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা, জেলা আ.লীগের প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক মাজেদুল বারি নয়ন, বনপাড়া পৌর আ.লীগের সভাপতি কে এম জাকির হোসেন, গুরুদাসপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল মতিন মাস্টার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলাল শেখ, খুবজীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম, পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম সবুজ, আওয়ামী লীগ নেতা আলমগীর শেখ ও চার ইউনিয়নের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানসহ অনেক আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস এমপি না থাকায় আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতাকর্মীদের মধ্যে নতুন হিসাব নিকাশ শুরু হয়েছে। পাল্টে যাচ্ছে ভোটের চিত্র। সাধারণ ভোটাররাও ভাবছেন নতুন করে।

নৌকার প্রার্থী সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারীর পক্ষে ভোটের মাঠে প্রচার-প্রচারণায় রয়েছেন গুরুদাসপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, পৌর সভার মেয়র শাহনেওয়াজ আলী, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান সরকার এমদাদুল হক মোহাম্মাদ আলী, নাজিরপুর ইউপি চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী, বিয়াঘাট ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান, মশিন্দা ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল বারী, চাপিলা ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান ও গুরুদাসপুর পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম বিপ্লব। বড়াইগ্রাম ইউপির চেয়ারম্যান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোমিন আলী, জোনাইল ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম, নগর ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তফা শামসুজ্জোহা, গোপালপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবু বক্কর সিদ্দিক এবং চান্দাই ইউপি চেয়ারম্যান শাহানাজ পারভিন। তারা নৌকার প্রার্থী সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারীর সঙ্গে থেকে নির্বাচনি প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

স্বতন্ত্র প্রার্থী আসিফ আব্দুল্লাহ বিন কুদ্দুস শোভন বলেন, আমার বাবা পাঁচবারের নির্বাচিত এমপি প্রয়াত অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস গুরুদাসপুর-বড়াইগ্রাম উপজেলায় প্রায় শতভাগ পাকারাস্তা, স্কুল-কলেজ, মাদরাসা প্রতিষ্ঠা, বিভিন্ন ধরনের উন্নয়নসহ সরকারের সহযোগিতায় অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। আমি দুই উপজেলার জনগণের ভালোবাসা নিয়ে বাবার অসমাপ্ত কাজগুলো শান্তিপূর্ণভাবে সমাপ্ত করতে চাই। সেই সঙ্গে গুরুদাসপুর-বড়াইগ্রামে আধুনিকায়নে ঢেলে সাজানো, নির্বাচনি এলাকার সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড গতিশীল করাসহ মানুষের কল্যাণে আধুনিক, যুগোপযোগী ও টেকসই উন্নয়নে কাজ করতে চাই।

এছাড়াও আমার বাবার শূন্যতা দূর করতে স্থানীয় ভাবে আওয়ামী লীগের রাজনীতি শক্তিশালী, ঐক্যবদ্ধ এবং বিভেদ শূন্য করে দলকে গতিশীল ও চাঙ্গা করে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে চাই।

আ.লীগের প্রার্থী সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী বলেন, তিনি আওয়ামী লীগের পরীক্ষিত সৈনিক হওয়ায় দুবার নৌকা পেয়েছেন। তিনি নৌকার সঙ্গে বেঈমানি করেননি। নৌকা প্রতীক নিয়ে উপজেলার চেয়ারম্যান এবং সংসদ সদস্য হয়েছি। আগামী ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নির্বাচিত হয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার দিয়ে গুরুদাসপুর-বড়াইগ্রাম উপজেলার উন্নয়নের কাজ করতে চাই।

এদিকে প্রচার-প্রচারণায় পিছিয়ে নেই আওয়ামী লীগের আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী গুরুদাসপুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়াম্যান মো. জাহিদুল ইসলাম জাহিদ ঈগল প্রতীক। তিনিও দিনরাত প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

নাটোর-৪ (গুরুদাসপুর-বড়ইগ্রাম) আসনে ৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বী করছেন। প্রার্থীরা হলেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য ডা. সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক আসিফ আব্দুল্লাহ শোভন (ট্রাক), গুরুদাসপুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি স্বতন্ত্র প্রার্থী জাহিদুল ইসলাম (ঈগল), স্বতন্ত্র প্রার্থী সুজন আহম্মেদ (দোলনা), জাতীয় পার্টি (জেপি) এস এম সেলিম রেজা (বাইসাইকেল)। বাংলাদেশ কংগ্রেস পার্টির শান্তি রিবেরু (ডাব), তৃণমূল বিএনপির প্রার্থী আব্দুল খালেক সরকার (সোনালী আঁশ), বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের গাজী আবু সায়েম রতন (নোঙর)।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, আগামী ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে ভোটগ্রহণ। প্রার্থীরা তাদের নির্বাচনি প্রচার-প্রচারণা ১৮ ডিসেম্বর থেকে ৫ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত করতে পারবে।

 

বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।